1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
এবি পার্টিতে নবাগতদের সংবর্ধনা পাইকগাছায় কপোতাক্ষী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগে অনিয়ম বটিয়াঘাটায় বিধবা মহিলাকে উচ্ছেদ ও জীবন নাশের হুমকি গাবুরায় ঘুর্ণিঝড় রি‌মেলে ক্ষ‌তিগ্রস্ত ৫০০ প‌রিবা‌রে ব্রতীর খাদ‌্য সহায়তা উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের মতবিনিময় কেশবপুরে নদ-নদীর পানির প্রবাহ সৃষ্টির দাবিতে স্মারকলিপি রেমাল ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ দলিত পরিবারের পাশে হোপ আউটরিস্ট মিনিস্ট্রি ও প্রজ্ঞা ফাউন্ডেশন নড়াইলে অপহরণের পর হত্যা,৩ জনের ফাঁসির আদেশ কেশবপুরে শিশুদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ মঙ্গলকোট-বিদ্যানন্দকাটি ২৩তম অষ্ট প্রহরব্যাপী মহানামযজ্ঞ অনুষ্ঠান সমাপ্ত  সাতক্ষীরায় ঘের ব্যবসায়ীর ঘের হুমকির মুখে সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী কমিটের নামে মিথ্যা অপপ্রচার করায় খুলনা অনলাইন প্রেসক্লাব এর উদ্বেগ টানা ২০ দিনের ছুটিতে যাচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলনায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে যুবক নিহতের ঘটনায় মানববন্ধন যশোর জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শার্শা থানার শেখ মনিরুজ্জামান ঈদুল আযহায় বাচ্চাদের জন্য নিরাপত্তা টিপস কেএমপির অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত লোহাগড়ায় সমবায় সমিতির উদ্যোগে দিনব্যাপী ভ্রাম্যমান প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত ঝিকরগাছায় ধর্ষনের ঘটনায় স্থানীয় ভাবে মিমাংসার চেষ্টা : ধর্ষক মিজানুর আটক লোহাগড়ায় মাদক বিরোধী সেমিনার অনুষ্ঠিত

লক্ষ্মীপুর জেলার রহমতখালী খাল ও বীরেন্দ্র খাল দখল হয়ে যাচ্ছে, দেখার যেন কেউ নেই

  • প্রকাশিত : শনিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৪৪৫ বার শেয়ার হয়েছে

সোহেল হোসেন, লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি//
লক্ষ্মীপুর জেলাতে  রহমতখালী খাল রামগতি ও রামগঞ্জ উপজেলার বীরেন্দ্র খাল দিন দিন বেদখল হয়ে যাচ্ছে। জেলার চন্দ্রগঞ্জ থেকে জেলা শহর পর্যন্ত রহমতখালীর বিভিন্ন পয়েন্টে খালের দু’পাড়ে গড়ে উঠেছে অবৈধ স্থাপনা।

এতে দিন দিন সংকুচিত হয়ে এক সময়ের ঐতিহ্যবাহী রহমতখালী খাল এখন তার অস্তিত্ব হারাতে বসেছে। এই ছাড়া বাজারকেন্দ্রীক ময়লা-অবর্জনা ফেলার কারণে দূষিত হচ্ছে খালের পানি। সরেজমিনে দেখা গেছে, সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ, মান্দারী, জকসিন বাজার এবং পৌর এলাকার ঝুমুর সিনেমাহল সংলগ্ন, মাদাম, বাজার ব্রিজ সংলগ্ন খালের দু’পাড়ে, গোশত হাটা সংলগ্ন মসজিদের পাশে রহমতখালীর পাড়ে স্থায়ী এবং অস্থায়ী ইমারত বা দোকান ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। এই কয়েকটি স্থানে পুরনো স্থাপনার পাশাপাশি নতুন করে স্থাপনা তৈরি হচ্ছে।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাধাপ্রাপ্ত না হওয়ায় দখলদাররা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে ঝুমুর সিনেমাহল সংলগ্ন ময়দার মেলের পেছনের বিস্তীর্ণ অংশ ও বাজার ব্রিজের পূর্ব পাশে হায়দার শপিং কমপ্লেক্সের পেছনে খালের দুই পাড় দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। আর মান্দারী বাজারের ভেতর দিয়ে বয়ে যাওয়া রহমত খালী সরু নালায় পরিণত হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি জাতীয় নদ-নদী রক্ষা কমিশন কর্তৃক প্রদত্ত নির্দেশনায় অবৈধ দখলদারদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তালিকায় রহমতখালী খালের শুধুমাত্র জেলা শহরের মাদাম থেকে বাজার ব্রিজ অংশ পর্যন্ত ৭৬নং মজুপুর মৌজার ২১৩ দাগ, ৬৩ বাঞ্চানগর মৌজার ৮৪০১ ও ১৬৬২২ দাগে মাত্র ৬জন দখলদারদের নাম রয়েছে। শুধু শহর অংশেই অনেক দখলদার তালিকার বাইরে রয়ে গেছে।

আর শহরের বাইরে জকসিন, মান্দারী, চন্দ্রগঞ্জ অংশের তালিকা তৈরি করা হয়নি। এই ছাড়া রামগঞ্জের বীরেন্দ্র খালের ৯৬জন অবৈধ দখলদারের তালিকা প্রণয়ন করেছে উপজেলা প্রশাসন। রামগঞ্জ মধ্য বাজার ব্রিজ থেকে মডেল মসজিদ পর্যন্ত ৬৫নং আঙ্গরপাড়া ও ৬৭নং কাজিরখিল মৌজার অংশে খালের ওপর দখলদাররা অবৈধভাবে স্থাপনা তৈরি করে রেখেছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন থেকে দখলদাররা রামগঞ্জের বীরেন্দ্র খাল দখল করে ইমারত নির্মাণ করে ব্যবসা ও বসবাস করে আসছে। ফলে প্রবাহমান ঐতিহাসিক এই বীরেন্দ্র খালটি মরা খালে পরিণত হয়েছে। এতে বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতা ও কৃষিকাজে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

স্থানীয়রা খালের দু’পাড়ে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দাবি জানালেও অজ্ঞাত কারণে সেগুলো অপসারণ করা হয়নি। উল্টো দিন দিন নতুন স্থাপনা তৈরি হতে দেখা গেছে। লক্ষ্মীপুর পৌর মেয়র মোজ্জামেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া বলেন, গত কয়েকদিন থেকে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার জলাবদ্ধতা নিরসনে খাল পরিষ্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ময়লা পরিষ্কার করলেও খাল দখলের কারণে আবার ময়লা জমে যায়। জেলা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে অভিযান চালিয়ে রহমতখালী খালের পৌরসভা অংশে অবৈধ দখল মুক্ত করা হবে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. ফারুক আহমেদ দেশ কালান্তরকে বলেন, রামগঞ্জের বীরেন্দ্র খাল এবং সদর উপজেলার রহমতখালী খালের শুধুমাত্র বাজার অংশে অবৈধ দখলদারদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষে ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার এবং আমাদের সার্ভেয়ার কর্তৃক যৌথভাবে জরিপ ও তদন্তের মাধ্যমে তালিকা তৈরি করেছে। জেলা-উপজেলা প্রশাসন এবং পৌর কর্তৃপক্ষের সমন্বয়ে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে। খালের যে সব স্থানে অবৈধ দখলদারদের তালিকা তৈরি করা হয়নি, সেগুলো সরেজমিনে দেখে তালিকা করা হবে। তিনি বলেন, ২০১৯ইং সালে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কিন্তু করোনার কারণে সেটা থমকে ছিল। কিন্তু এবার খালের দুই পাড়ে সৌন্দর্যবর্ধন করে জনসাধারণের হাঁটার রাস্তা তৈরির পরিকল্পনা করা হয়েছে। তাই প্রশাসনের পক্ষ থেকে উচ্ছেদের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।