1. info@www.khulnarkhobor.com : admin :
  2. khulnarkhobor24@gmail.com : Khulnar Khobor : Khulnar Khobor
বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৫৭ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
★খুলনার খবরে আপনাদের স্বাগতম★এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি★আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।০১৯২৫-৫৩৬৩৪০★আপনাদের কাছে কোন তথ্য থাকলে আমাদের জানাতে পারেন।যোগাযোগের ঠিকানা, ৪৭,আপার যশোর রোড, খুলনা।ই-মেইল: khulnarkhobor24@gmail.com।মোবাঃ ০১৭২১-৪২৮১৩৫, ০১৭১০-২৪০৭৮৫।★আমাদের  প্রতিনিধি হতে চাইলে যোগাযোগ করুন : ০১৯২৫-৫৩৬৩৪০/০১৭১০-২৪০৭৮৫।★আকাশ ২৬টি HD চ্যানেলসহ মোট ৯০টি চ্যানেল মাত্র টাকা ৩০০/মাস "আকাশ" কিনতে যোগাযোগ করুন।৪৭,আপার যশোর রোড,খুলনা।মোবাঃ০১৭২১-৪২৮১৩৫,০১৯২৫-৫৩৬৩৪০,০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৯৭০-২৪০৭৮৫।লুকাস,  ভলভো,  হ্যামকো,  সাইফপাওয়ার ব্যাটারিসহ সকল প্রকার ব্যাটারি পাইকারি ও খুচরা মুল্যে পাওয়া যায়।সকল প্রকার এসি ও সোলার প্যানেল পাওয়া যায়।এম,ইব্রাহিম এন্ড কোং,৪৬ আপার যশোর রোড, খুলনা।মোবাইল: ০১৭১০-২৪০৭৮৫/০১৯৭০-২৪০৭৮৫★রিক্সা ও ভ্যানের ১নং চায়না ব্যাটারির একমাত্র পাইকারি বিক্রয় প্রতিষ্ঠান এম,ইব্রাহিম এন্ড সন্স।৪৭,আপার যশোর রোড,(সঙ্গিতার মোড়) খুলনা।মোবাঃ ০১৭১০-২৪০৭৮৫/ ০১৯৭০-২৪০৭৮৫/০১৭২১-৪২৮১৩৫।
খুলনার খবর
ডুমুরিয়া সদরে একটি মৎস্য আড়তে অভিযান চালিয়ে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা ৩ হাজার কেজি চিংড়ি বিনস্ট শালিখার আড়পাড়া সেতুর ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করেন এমপি ড.শ্রী বীরেন শিকদার কেশবপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৬ তম জন্মবার্ষিকী পালিত ডুমুরিয়া উপজেলার ৩ জন অফিসারের বদলী জনিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত ডুমুরিয়া বিভিন্ন আয়োজন এর মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ৭৬তম জন্মদিন উদযাপিত তেরখাদায় ছাত্রলীগের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬ তম জন্মদিন পালিত মোংলা বন্দরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬ তম জন্মদিন উদযাপন বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুর পিলারে ধাক্কা লাগা জাহাজ আটক শেখ হাসিনার জন্ম না হলে উন্নত বাংলাদেশের স্বপ্ন অধরা থেকে যেত-আব্দুস সালাম মূর্শেদী এমপি মাগুরার শ্রীপুরে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচোনা সভা

দিঘলিয়ায় আতাই নদীর তীরে গড়ে তোলা ইটভাটা বন্ধের দাবী

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২১ মার্চ, ২০২২
  • ১৫৭ বার পড়া হয়েছে

এস.এম.শামীম দিঘলিয়া খুলনা // দিঘলিয়ায় আতাই নদীর দুই পাড়ে গড়ে উঠেছে অবৈধ ইট ভাটা। এসব ইট ভাটার নেই কোনো নিজস্ব জমি। নদীর পাড় কেটে জোয়ারের পানির পলি জমিয়ে বছর ধরে ইট কাটে। একদিকে যেমন স্বাভাবিক পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে। অপর দিকে নদী ভাঙ্গনকে নিশ্চত ও বেগবান করছে।

খুলনা জেলার বিভিন্ন উপজেলার ইট ভাটাগুলো যে সময় অভিযান চালিয়ে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে, সেই সময় দিঘলিয়া তেরোখাদা উপজেলার ইট ভাটার মালিকগণ নড়েচড়ে বসছেন। তেরোখাদা ও দিঘলিয়া উপজেলা প্রশাসন অজ্ঞাত কারণে নিরব।
দিঘলিয়া ও তেরোখাদা উপজেলার ইট ভাটাগুলো সরেজমিনে পরিদর্শন করে ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দিঘলিয়া ও তেরোখাদা উপজেলার মাঝখান দিয়ে প্রবাহিত আতাই নদীর তীরে গড়ে তুলেছে ৫টি ইট ভাটা।

এ ভাটাগুলো হলো কেবিসি, বিবিসি, রাজ ব্রিকস, সান ব্রিকস ও কেবিসি। ইট ভাটাগুলোর মধ্যে আতাই নদীর তীরে অবস্থিত খুলনার জনৈক পারভেজের সান ব্রিকস এ বছর থেকে বন্ধ রয়েছে। এর মধ্যে দিঘলিয়া পারে খুলনার মজলিশ খানের কেবিসি ও আতাই নদীর তেরোখাদা পারে মজলিশ খানের কেবিসি, আইচগাতী জুলু চেয়ারম্যান এর রাজ ব্রিকস, দিঘলিয়ার গাজীরহাট ইউনিয়নের মোল্লা জালাল উদ্দিন এর বিবিসি উল্লেখযোগ্য। এ সকল ইট ভাঁটা মালিক আতাই নদীর তীরে ভাঁটা স্থাপন করেছেন। তাঁরা নিজস্ব কোনো জায়গা ব্যবহার না করে এবং অন্যত্র থেকে মাটি ক্রয় না করে আাতাই নদীর পাড় দখলে নিয়ে পাড় কেটে ও গর্ত খনন করে বর্ষা ও বন্যা মৌসুমে নদীর প্রবল জোয়ারকে কাজে লাগিয়ে পলি মাটি আটকিয়ে সেই মাটি ও বালি ব্যবহার করে শুকনা মৌসুমে ইট তৈরি করে চড়া মূল্যে বিক্রি করে অবৈধভাবে মুনাফা লুফে নিচ্ছে।

এ সকল ইট ভাটার কারণে একদিকে যেমন জালানি গাছ ধ্বংস হচ্ছে। অপর দিকে নদী ভাঙ্গনকে তরান্বিত করছে। পরিবেশকে করে তুলছে হুমকি স্বরূপ। দিঘলিয়া ও তেরোখাদা এলাকার নদী পাড়ের রাস্তাগুলো অতিরিক্ত ইট ভর্তি ট্রাক গুলো চলাচল কার কারণে তাদের অস্তিত্ব মানচিত্রেই দৃষ্টিগোচর হচ্ছে। এলাকাবাসী এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, ইটের ভাঁটা হবে সমতল ভূমিতে। ভাঁটা মালিক মাটি ও বালু কিনে মজুদ করে সেই মাটি ব্যবহার করে ইট তৈরি করবেন। তাঁরা কেন নদীর পাড় অবৈধভাবে ব্যবহার করবে এবং নদীর পলিমাটি ও বালি ব্যবহার করবে? খুলনা জেলার বিভিন্ন উপজেলার অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদে যখন স্থানীয় প্রশাসন তৎপর ভূমিকা পালন করছেন ও ভাঁটা উচ্ছেদে যখন শক্তিশালী ভুমিকা পালন করতে জোর অভিযান পরিচালনা করছেন। সেই সময় তেরোখাদা ও দিঘলিয়া উপজেলা প্রশাসন নিরব দর্শকের ভূমিকায়। ইট ভাঁটা মালিকগণও যেন নড়েচড়ে শক্ত অবস্থান নিয়ে বসছেন। এ ব্যাপারে কথা হয় দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোল্লা আকরাম হোসেন এর সাথে।

তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, এ সকল ইট ভাটার বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসনের বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। এ ব্যাপারে কথা হয় দিঘলিয়া উপজেলার একজন সাংবাদিক এস এম শামীমের সাথে। তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, আমার কাছে এলাকার অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও জনপ্রতিনিধিরা অভিযোগ করেছে এ সকল ইট ভাঁটা মালিকদের বিরুদ্ধে। এদের কারণে নদী ভাঙ্গন হয়। ক্ষতিগ্রস্ত হয় দিঘলিয়ার নদী পাড়ের মানুষ। ক্ষতিগ্রস্ত হয় এ এলাকার হাজার হাজার মিটার জনপথ। স্থানীয় প্রশাসন নিরব দর্শকের ভূমিকায়। আমি সম্প্রতি এ ব্যাপারে দিঘলিয়া উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সংসদ সদস্যকে ঘটনাটা জানিয়েছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.comজাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।নিবন্ধন নাম্বার:...।যেকোন তথ্য পাঠাতে আমাদের কাছে মেইল করুন।আপনাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া সকল ঘটনার খবর আমাদের জানাতে পারেন।ই-মেইল: khulnarkhobor24@gmail.com।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।