1. info@www.khulnarkhobor.com : admin :
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৩২ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
★খুলনার খবরে আপনাদের স্বাগতম★এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি★আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন।০১৯২৫-৫৩৬৩৪০★আপনাদের কাছে কোন তথ্য থাকলে আমাদের জানাতে পারেন।যোগাযোগের ঠিকানা, ৪৭,আপার যশোর রোড, খুলনা।ই-মেইল: khulnarkhobor24@gmail.com।মোবাঃ ০১৭২১-৪২৮১৩৫, ০১৭১০-২৪০৭৮৫।★আমাদের  প্রতিনিধি হতে চাইলে যোগাযোগ করুন : ০১৯২৫-৫৩৬৩৪০/০১৭১০-২৪০৭৮৫।★আকাশ ২৬টি HD চ্যানেলসহ মোট ৯০টি চ্যানেল মাত্র টাকা ৩০০/মাস "আকাশ" কিনতে যোগাযোগ করুন।৪৭,আপার যশোর রোড,খুলনা।মোবাঃ০১৭২১-৪২৮১৩৫,০১৯২৫-৫৩৬৩৪০,০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৯৭০-২৪০৭৮৫।লুকাস,  ভলভো,  হ্যামকো,  সাইফপাওয়ার ব্যাটারিসহ সকল প্রকার ব্যাটারি পাইকারি ও খুচরা মুল্যে পাওয়া যায়।সকল প্রকার এসি ও সোলার প্যানেল পাওয়া যায়।এম,ইব্রাহিম এন্ড কোং,৪৬ আপার যশোর রোড, খুলনা।মোবাইল: ০১৭১০-২৪০৭৮৫/০১৯৭০-২৪০৭৮৫★রিক্সা ও ভ্যানের ১নং চায়না ব্যাটারির একমাত্র পাইকারি বিক্রয় প্রতিষ্ঠান এম,ইব্রাহিম এন্ড সন্স।৪৭,আপার যশোর রোড,(সঙ্গিতার মোড়) খুলনা।মোবাঃ ০১৭১০-২৪০৭৮৫/ ০১৯৭০-২৪০৭৮৫/০১৭২১-৪২৮১৩৫।
খুলনার খবর
মাদারীপুরের কালকিনিতে অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার নড়াইলে বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ বিতরণ লোহাগড়ায় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি,স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন আহবায়ক তারিকুল গ্রেফতার পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২ নম্বর ইউনিট ট্রিপ করে দক্ষিণাঞ্চলে বিদ্যুৎ বিপর্যয় ইনস্টাগ্রামে যুক্ত হলো নতুন ফিচার ইউটিউবের ৫টি ফিচার সম্পর্কে জানুন নড়াইলে কৃষক দলের সমাবেশ অনুষ্ঠিত নড়াইলের লোহাগড়ায় গৃহবধূকে অপহরণ থানায় মামলা না নেওয়ার অভিযোগ নড়াইলে পানির অভাবে পাট নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষকরা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ

আড়ুয়া ও কামারগাতী খেয়াঘাটে খাস কালেকসনের নামে চলছে রাজস্ব ফাঁকি

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৩০ বার পড়া হয়েছে

এস.এম.শামীম দিঘলিয়া খুলনা // নদী বেষ্ঠিত দিঘলিয়া উপজেলা জুড়ে যোগাযোগের জন‍্য রয়েছে ১৭ টি খেয়াঘাট ও ২ টি ফেরিঘাট। এ সকল ঘাট থেকে সরকার বেশ মোটা অংকের টাকা রাজস্ব পায়, যা অত্র এলাকার ও দেশের উন্নয়ন এর জন্য ভুমিকা রাখে। দিঘলিয়া উপজেলার ১৭টি ঘাটের মধ্যে বারাকপুর ইউনিয়ন এর আড়ুয়া ও কামারগাতী খেয়াঘাট দুটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, পার্শবর্তী তেরখাদা, গাজিরহাট ও কালিয়া উপজেলার সাথে দিঘলিয়া হয়ে খুলনার সাথে যোগাযোগে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আচ্ছে। অত্র অঞ্চলের বসবাসকারী মানুষেরা দীর্ঘদিন ধরে ঘাট দুটির দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ জানালেও কতৃপক্ষ রহস্যময় আচারন করে আচ্ছে এবং ঘাটের ইজারাদারের বিরুদ্ধে কোনোরুপ ব্যাবস্হা নিতে দেখা যায়নি।

এবছর কোন এক অজানা কারনে কোন ইজারাদার ঘাট নেয়ার জন‍্য সিডিউল কেনেনি এবং পহেলা বৈশাখ হতে ভূমি অফিসের অধিনে রাজস্ব আদায় চলছে, যা খাস কালেকশন নামে পরিচিত। গত ১৪ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার সকালে মহেশ্বরপাশা কালিবাড়ি তহসিল অফিসের নায়েব বাবু জগন্নাথ ঘাট দুটিতে যায় এবং উক্ত ঘাটে আগে জারা নৌকার মাঝি ছিল তাদের উপ‍র ঘাট চালানোর নির্দেশ দিয়ে চলে যান এযাবৎকাল তকে আর দেখাযায়নি। দিন শেষে মাঝিরা যে টাকা জমাদেন নায়েব বাবু সেটিই জমা করেন, কোন তদারকি ছাড়াই। এই সুযোগে কুচক্রী মহলটি তহশিল অফিস এর সাথে যোগসাজশে আদায় কম দেখিয়ে অতিরিক্ত অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। অথচ গতবার যে রাজস্ব স‍রকারী কোষাগারে জমা হয়েছিল, বর্তমান জমার গড় (প্রতিদিন) হিসাব করলে এখন তা অর্ধেকেরও কম। অথচ বতর্মানে যে টাকা কোষাগারে জমা হচ্ছে, তার থেকেও বেশি দিয়ে ঘাট নেয়ার মত ইজারাদার থাকলেও ইজারা দেওয়া হচ্ছে না।

এ বিষয়ে এলাকার কিছু মানুষ জানান, চালাকি করে একটি চক্রদ্বারা এ সকল ঘাট এ ভাবেই নিজেদের পকেট ভারি করার জন‍্য খাশ দেখানো হচ্ছে। এই ঘাট দুটি নিয়ে তদারকি করলেই বেরিয়ে আসবে, এর সাথে জড়িত রাঘব বোয়ালদের নাম সহ অজানা অনেক তথ‍্য। নিজস্ব স্বার্থে যারা সরকারী রাজস্ব ধংশ করেছে এখনি তাদের চিহ্নিত করে, জনগনের সামনে তাদের মুখশ খুলে দিতে হবে এবং আইনের কাঠগড়ায় এনে দেশ ও জাতির উন্নয়নকে তরান্বিত করতে সাংবাদিক সহ সুশিল সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে।

এবিষয়ে খোঁজ খবর করতে যেয়ে জানা যায়, প্রভাবশালী একটি গ্রুপ ঘাটের রাজস্ব সরকারি কোষাগারে জমা না দিয়ে অথবা কম দেখিয়ে নিজেদের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করার পায়তারা করছে। এই গ্রুপের নেতৃত্বে আছে দিঘলিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মারুফুল ইসলাম, সাথে উপজেলা পরিষদের কিছু কর্মকতা এই সিন্ডিকেট এর সাথে জড়িত। তিনি ইতিমধ্যে দুটি গ্রুপের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা নিয়েছেন, ঘাটের ইজারা দেওয়ার কথা বলে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি গ্রুপের প্রতিনিধি এ প্রতিবেদককে জানান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মারুফুল ইসলাম আমার কাছ থেকে সাড়ে পাঁচ লক্ষ (৫,৫০,০০০/=) টাকা নিয়েছে, আড়ুয়া ঘাটের ইজারা দেওয়ার কথা বলে। তিনি আমাকে ঘাট ও দিচ্ছে না, আবার আমার টাকাও ফেরত দিচ্ছে না। আমি জানতে পেরেছি তিনি আরও একজন এর কাছ থেকে কামারগাতি ঘাট এর জন্য আট লক্ষ (৮,০০,০০০/=) ও আড়ুয়া ঘাটের জন্য সাত লক্ষ (৭,০০,০০০/=) টাকা নিয়েছে এবং বর্তমানে খাস কালেকশন এর আড়ালে মূলত তার লোকজনই ঘাট পরিচালনা করছে। এছাড়াও মহেশ্বরপাশা কালিবাড়ির তহসিল অফিসের নায়েব বাবু জগন্নাথ ঘাট দুটিতে যেদিন (১৪ এপ্রিল) এসেছিলেন, সেদিন তিনি পঞ্চাশ হাজার টাকা (৫০,০০০/=) উৎকোচক নিয়ে সরে পড়েন, এরপর থেকে তাকে আর দেখা যায়নি।

এবিষয় স্হানীয় এক আওয়ামী লীগের নেতার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, এই ঘাট দুটির অনিয়ম ও দূরর্নীতি নিয়ে ঐ এলাকার মানুষের অনেক গুলো অভিযোগ এর প্রেক্ষিতে আমি স্হানীয় সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদীর কাছে বিষয়টি উপাস্হাপন করলে তিনি স্হানীয় প্রশাসন কে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে নির্দেশদেন। কিন্তু আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি খাস আদায়ের নামে ঐ মহলটি গোপনে ঘাট দুটি নিয়ন্ত্রণ করছে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, ঘাট দুটি ভূমি অফিসের নিয়ন্ত্রনে পরিচালিত হচ্ছে (খাস কালেকশন হচ্ছে), ব্যাক্তি কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হয়নি। আর ঘাটের নাম করে যদি কেহ আর্থিক লেনদেন করে থাকে তবে সেটা তার ব্যাক্তিগত বিষয়, আমি এ বিষয়ে অবগত নই।
কিন্তু খবর নিয়ে জানাযায়, এই ঘাটের সম্পূর্ণ দেখভালের দায়িত্ব ইউএনওর দপ্তরের আওতায়, তিনি বিষয়টি না জানার ভান করে দায়িত্ব এড়িয়ে যান।

উল্লেখ্য এ বিষয়ে সরেজমিনে সাংবাদিকদের একটি দল তথ্য সংগ্রহ করতে ঘটনাস্থল ও বিভিন্ন দপ্তরে গেলে, তন্মধ্যে এক সাংবাদিক কে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মারুফুল ইসলাম মুঠোফোনে হুমকি-ধমকি দেন এবং আজকের মধ্যে তাকে চেয়ারম্যান এর দপ্তরে দেখা করতে বলেন।এলাকাবাসী এবিষয়ে উদ্ধোতন কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.comজাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।নিবন্ধন নাম্বার:...।যেকোন তথ্য পাঠাতে আমাদের কাছে মেইল করুন।আপনাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া সকল ঘটনার খবর আমাদের জানাতে পারেন।ই-মেইল: khulnarkhobor24@gmail.com।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।