1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৩:২৮ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
পাইকগাছায় রাইস মিলের শব্দ,কুড়া ও ধুলাবালিতে পরিবেশ নষ্ট,ইউএনও দপ্তরে অভিযোগ গাবুরার খোলপেটুয়া নদের বেড়িবাঁধে ভাঙন, আতঙ্কে এলাকাবাসী টস জিতে বোলিংয়ে বাংলাদেশ রাষ্ট্রপতির সাথে সেনাবাহিনী প্রধানের বিদায়ী সাক্ষাৎ সাংবাদিকতা নিয়ে পুলিশের বিবৃতিতে বিএফইউজে ও ডিইউজের উদ্বেগ কেশবপুর চারুপীঠ একাডেমি’র একযুগ পূর্তি সাংস্কৃতিক উৎসব পালন জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত  ফকিরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলে নিহত কেশবপুরে ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মাগুরায় জমিজমা দাঙ্গায় যুবক খুন, বাড়িঘর ভাঙচুর লুটপাট কেএমপি’র অভিযানে ৬০০ গ্রাম গাঁজা ও ২০ পিস ইয়াবা সহ  গ্রেফতার ৫ বজ্রপাতে কয়রার শিশুসহ নিহত ২ মাধ্যমিক পর্যায়ে স্কুল খুলবে ২৬ জুন বাগেরহাটে ৬০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরণ করেন সংসদ সদস্য প্রতিনিধি লোহাগড়ায় নিরাপদ সড়কের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত চামড়া পাচার রোধে শার্শা সীমান্তে বিজিবি টহল জোরদার শার্শায় ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানচালক নিহত, ট্রাক ও ড্রাইভার আটক শার্শার পল্লীতে ককটেল বিস্ফোরণে দুই শিশু আহত কেশবপুরে এস,এস,সি-৯১ ব্যাচের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানটি মিলনমেলায় পরিণত হয় কেন্দ্রীয় জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সহ-সভাপতি হলেন পাইকগাছার লিটন

ডুমুরিয়ার সৌরভীকে ধারের টাকা ফেরত চাওয়ায় হত্যা

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২ জুন, ২০২২
  • ২০৪ বার শেয়ার হয়েছে

সরদার বাদশা,নিজস্ব প্রতিনিধি // বার বার ধারের টাকা ফেরত চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় ইন্স্যুরেন্সকর্মী সৌরভী মণ্ডলকে (৪৫) শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। হত্যার পর দিনও হত্যাকারী লাশের পাশে ঘোরাঘুরি করেন। ঘটনার চার দিন পর তিনি ভারতে গিয়ে আত্মগোপন করেন। ঘটনার দীর্ঘ আড়াই বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই ক্লু-লেস এই হত্যার রহস্য উন্মোচন করতে সক্ষম হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ঘটনার একমাত্র মাস্টারমাইন্ড প্রণব কুমার মণ্ডলকে (৩৯)।

আদালতে তিনি হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দিও দিয়েছেন। জবানবন্দি রেকর্ড করেন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৪ এর বিচারক মো. আজহারুল ইসলাম।

গতকাল বুধবার (০১ জুন) দুপুরে পিবিআই খুলনা কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়। লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান পিবিআই খুলনার পুলিশ সুপার সৈয়দ মোশফিকুর রহমান। আলোচিত এ হত্যাকাণ্ড ঘটে ডুমুরিয়া উপজেলার পশ্চিম বলাবুনিয়া গ্রামে।

নিহত সৌরভী মণ্ডল বলাবুনিয়া গ্রামের স্বপন মণ্ডলের স্ত্রী। তিনি পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মাঠকর্মী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সুদের ব্যবসা করতেন। এ মামলায় গ্রেপ্তার প্রণব মণ্ডল বলাবুনিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের দিলীপ চন্দ্র মণ্ডলের ছেলে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার সৈয়দ মোশফিকুর রহমান জানান, আসামি প্রণব মণ্ডল সৌরভী মণ্ডলের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা ধার নেয়। একাধিকবার টাকা ফেরত দিতে চেয়ে ওয়াদা ভঙ্গ করেন তিনি। সর্বশেষ ২০১৯ সালের ২ জুলাই সকালে সৌরভী মণ্ডল টাকা ফেরত চাইতে প্রণবের বাড়িতে যায়। টাকা না দিলে মামলা করার হুমকি দেন সৌরভী। ওই দিন রাতে প্রণব স্থানীয় অনুষ্ঠানে ছিলেন। বাড়ি ফিরে যাওয়ার পথে রাত পৌনে ১টার দিকে সৌরভী মণ্ডলের সঙ্গে দেখা করতে তার বাড়িতে যায়। ঘুমন্ত সৌরভীকে ডেকে তুলে বলেন টাকা দিতে তার আরও সময় লাগবে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে প্রণব গলা চেপে ধরলে সৌরভীর মৃত্যু হয়। নড়াচড়া করতে না দেখে সৌরভীর গলায় গামছা পেচিয়ে প্রণব পালিয়ে যায়। তাকে যেন কেউ সন্দেহ না করে সেজন্য সকালে গ্রামের মানুষের সঙ্গে সৌরভীর লাশ দেখতে তাদের বাড়িতেও যায় প্রণব। হত্যার চার দিন পর পালিয়ে ভারতে চলে যায় প্রণব।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ৭ জনকে আসামি করে ডুমুরিয়া থানায় মামলা করে। আসামিরা সকলে নিহতের প্রতিবেশী। তাদের সঙ্গে পূর্ব শত্রুতা ছিল। পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। বর্তমানে তারা জামিনে রয়েছে।

পুলিশ সুপার বলেন, সৌরভী হত্যা মামলা ছিল ক্লু-লেস মামলা। প্রথমে ডুমুরিয়া থানার পুলিশ মামলার তদন্ত করে। কিন্তু তদন্তে অগ্রগতি না হওয়ায় বাদীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ২০২০ সালের ৩ ডিসেম্বর মামলা পিবিআইতে হস্তান্তর করেন। এরপর তদন্ত কর্মকর্তা জানতে পারেন প্রণব নিহতের কাছ থেকে নগদ ১৫ হাজার টাকা সুদে নিয়েছে এবং হত্যার তিন দিন পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছে। তখনই পিবিআই নিশ্চিত হয় এ হত্যার সঙ্গে প্রণব জড়িত রয়েছে। দীর্ঘ আড়াই বছর পর প্রণব ডুমুরিয়ায় ফিরে আসে। গ্রামের বাড়িতে না গিয়ে ডুমুরিয়ার কুলটি গ্রামে বাড়ি ভাড়া নিয়ে বসবাস করতে থাকে। বিভিন্ন সোর্স মারফত ও উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে গত ৩০ মে রাতে ডুমুরিয়ার কুলটি গ্রাম থেকে প্রণবকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই খুলনার পরিদর্শক মো. ইকবাল হোসেন বলেন, প্রণব হত্যাকাণ্ডে একাই জড়িত ছিলেন- মর্মে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক বর্ণনা দিয়েছেন। দ্রুতই এ মামলার চার্জশিট দাখিল করা হবে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।