1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
বাগেরহাটে বৃষ্টিপ্রার্থনায় মুসল্লিদের ইসতিসকার নামাজ আদায় কেশবপুরে ট্রাকের পেছনে ট্রাকের ধাক্কা, হেলপার নিহত, চালক গ্রেফতার ফের খুলনা অঞ্চলে তাপমাত্রা ছাড়ালো ৪২ ডিগ্রি কেশবপুরে স্কাউটিং বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কোর্স অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি’র কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা শার্শায় স্মার্টফোনে ব‍্যাহত হচ্ছে শিক্ষার পরিবেশ,সমাজে বৃদ্ধি পাচ্ছে অসামাজিক কর্মকাণ্ড বাগেরহাটে বালু বোঝাই ট্রলির ধাক্কায় ভ্যানচালক ও তাঁর মায়ের মৃত্যু নেটওয়ার্ক আধুনিকায়নের লক্ষ্যে বাংলালিংক ও হুয়াওয়ের চুক্তি  ২৭ এপ্রিল যশোরে বিভাগীয় সভা সফল করতে খুলনায় সুজনের সভা কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদকের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী তারিকুল ইসলাম উজ্জলের গণসংযোগ কেশবপুরে দুই মাদক কারবারিসহ গ্রেফতার-৩ পথচারীদের খাবার স্যালাইন ও পানি দিলেন মেয়র শেখ আ: রহমান বাগেরহাটে গভীর রাতে লাগা আগুনে ৬টি দোকান পুড়ে ছাই পাইকগাছায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের দাফন সম্পন্ন পাইকগাছায় গ্রাম ডাক্তার কল্যাণ সমিতির সভা অনুষ্ঠিত কেশবপুরে ঘোড়া প্রতীকে ভোট চেয়ে গণসংযোগ উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মফিজুর রহমান মফিজের কেশবপুর চারুপীঠ একাডেমিতে শিশু বিষয়ক কর্মকর্তার মতবিনিময় কেশবপুর উপজেলা নির্বাচনে ১৪জন প্রার্থীকে প্রতিক বরাদ্দ, প্রচারনায় নেমে পড়েছেন সকলে লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬ জনসহ ১৩ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা

আজ থেকে শুরু হচ্ছে সুন্দরবনের পর্যটন মৌসুম!থাকছে বনজীবীদের প্রবেশাধিকার

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৬৩ বার শেয়ার হয়েছে

মোঃ শরিফুল ইসলাম // এক টানা তিন মাস বন্ধ থাকার পর আজ (১ সেপ্টেম্বর) ভোর থেকে ইকো-ট্যুরিস্ট (প্রতিবেশ পর্যটক) ও বনজীবীদের জন্য উন্মুক্ত সুন্দরবন। একই সঙ্গে শুরু হচ্ছে সুন্দরবনের ৯ মাসের পর্যটন মৌসুম। স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালুর পর রাজধানী ঢাকা থেকে সড়ক পথে সুন্দরবনের দূরত্ব মাত্র ৩ ঘণ্টায় নেমে আসায় এবারের পর্যটন মৌসুমে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের জন্য নতুন মাত্রা যোগ হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে পর্যটকদের চাপ সামাল দিতে ট্যুর অপারেটররা বিলাসবহুলসহ কয়েকশত লঞ্চ, ট্যুরিস্ট বোটসহ জলযান প্রস্তুত করে রেখেছে।

পাশাপাশি সুন্দরবন উপকূলের চলছে জেলে-বনজীবীরা সেরে নিচ্ছেন জাল, নৌকা আর ফিশিং ট্রলারসহ শেষ মূহুর্তের কাজ।

জীববৈচিত্র্যে ভরপুর ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইট (বিশ্ব ঐতিহ্য) সুন্দরবন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ জলাভূমি। সুন্দরবনে রায়েল বেঙ্গল টাইগার চিত্রল ও মায়া হরিণ, কুমির, কিং-কোবরাসহ ৩৭৫ প্রজাতির বন্যপ্রাণির বসবাস। জলভাগে রয়েছে বিশ্ব থেকে হারিয়ে যাওয়া ইরাবতীসহ ৬ প্রজাতির ডলফিন, কুমরসহ ২১০ প্রজাতির মাছ। দিনরাত ২৪ ঘণ্টায় ৬ বার রূপ বদলানো এই বনে রয়েছে সুন্দরী পশুরসহ শত শত প্রজাতির গাছপালা। বঙ্গোপসাগর কোলে সুন্দরবনে কটকার জামতলা সি-বিচে দেখা যায় সূর্যোদয় ও সূর্যান্ত। এসব প্রাণ-প্রকৃতির টানে দেশ-বিদেশের প্রতিবেশ পর্যটক ছুটে আসে সুন্দরবনে।

গত ১ জুন থেকে অধিকাংশ বন্যপ্রাণি ও মাছের প্রজনন নির্বিঘ্ন করতে টানা তিন মাস পর্যটক ও বনজীবীদের জন্য নিষিদ্ধ থাকার পর আজ (১ সেপ্টেম্বর) ভোর থেকে সবার জন্য উন্মুক্ত করা হচ্ছে গোটা সুন্দরবন। একই সঙ্গে শুরু হচ্ছে সুন্দরবনের ৯ মাসের পর্যটন মৌসুমও।

বন বিভাগের দেওয়া তথ্যমতে, এবার সুন্দরবনের পূর্ব বিভাগে মাছ, কাঁকড়া, মধু, গোলপাতা আহরণসহ জেলে বাওয়ালীদের কাছ থেকে সাড়ে ৩ হাজার পাস-পারমিট (বিএলসি) থেকেও রাজস্ব আয় হবে দ্বিগুন হবে বলে জানিয়েছে।

সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণি প্রজনন ও পর্যটন কেন্দ্র, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির জানান, বিগত তিন মাস সুন্দরবনে পর্যটক আসা বন্ধ থাকায় সরকারের রাজস্ব কিছুটা কমেছে, তার চেয়ে বেশি উপকার হয়েছে বনের বনজ সম্পদ, বন্যপ্রাণিকুলসহ মৎস্য সম্পদের। বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ও বন্যপ্রাণির বংশ বিস্তারেও সহায়ক হয়েছে। এরপরও সরকারি নির্দেশনায় আজ থেকে সুন্দরবন বনজীবীদের পাস-পারমিট চালু ও পর্যটন মৌসুম শুরু হওয়ায় পর্যটকদের তাদের বরণে করমজল বন্যপ্রাণি প্রজনন ও পর্যটন কেন্দ্র সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন জানান, পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে আগামী বছরের ৩১ মে পর্যন্ত ৯ মাস ধরে সুন্দরবনে পর্যটন মৌসুমে গত মৌসুমের চেয়ে সংখ্যা দ্বিগুনের কাছাকাছি পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে পর্যটকদের ঢল সামাল দিতে পর্যটকদের নিরাপত্তাসহ পর্যটন র্স্পটগুলোতে প্রস্তুত করার হয়েছে। বাঘ হরিণসহ বন্যপ্রাণিদের নিরাপত্তা ও তাদের নির্বিঘ্ন বসবাসের ওপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বন বিভাগের জনবল কম থাকায় পর্যটক ও বনজীবীদের সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য সুরক্ষায় সংক্রিয় সহায়তা কামনা করেন এই বন কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।