1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১২:৪৯ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
দিঘলিয়ায় নির্মিত হচ্ছে মিনি স্টডিয়াম; পাথরের পরিবর্তে ইটের খোয়া ও ধূলো বালু শার্শা উপজেলার সরকারি অফিস গুলোতে বিদ‍্যুৎ অপচয় হচ্ছে দেদারসে লোহাগড়ায় মধুমতী নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার লোহাগড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৭ মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত তেরখাদায় “অন্ধকার থেকে আলোর পথে” নাটকের শুভমুক্তি মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি ও হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন পাইকগাছায় রেমালে লন্ডভন্ড ইটের সলিং এর রাস্তা অবশেষে স্বেচ্ছাশ্রমে সংস্কার পাইকগাছায় প্রতিদিনের কথা’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন সাবেক ছাত্রলীগ নেতার কেশবপুর থানা পুলিশের অভিযানে ১ সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ ৮ জন গ্রেফতার মাও: সাখাওয়াত হোসেনের সুস্থতা কামনায় ইসলামী আন্দোলন খুলনা মহানগর নেতৃবৃন্দ দিঘলিয়ায় রেকর্ডীয় ভিপি জমিতে পাকা বাড়ি; বছর পেরিয়ে গেলেও উদ্ধার করতে পারেনি ভূমি অফিস ঝিকরগাছায় চুরি করতে এসে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যা ও মেয়ে আহত জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পেল খুলনার প্রিয়াম ফিশ এক্সপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পেল ৭৭ প্রতিষ্ঠান নড়াইলে সাংবাদিকের পরিবারের উপর হামলা ও প্রান নাশের হুমকির অভিযোগ শার্শায় পাট পচনের জন্য বৃষ্টির হাহাকার; কৃষকের মনে সংশয় লোহাগড়ায় পরিছন্ন ও সৌন্দর্যবর্ধন কর্মসূচির উদ্বোধন শার্শায় যুবককে ছুরিকাঘাত করে টাকা ছিনতাই

কেশবপুরে সাহিত্য ভ্রমন পরিষদের ভ্রমন সভা

  • প্রকাশিত : রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৩৩৪ বার শেয়ার হয়েছে

পরেশ দেবনাথ,কেশবপুর,যশোর // কেশবপুরে সাহিত্য ভ্রমন পরিষদের ভ্রমন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভ্রমন পরিষদের সভাপতি হাশেম আলী ফকিরের পরিচালনায় শণিবার (১০ ডিসেম্বর) দিনভর ওই ভ্রমন পরিচালিত হয়। ভ্রমনে কেশবপুরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলি পরিদর্শন এবং স্থানগুলির ইতিহাস পর্যালোচনা করা হয়।গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো হলো কেশবপুর পুরাতন বাসস্ট্যান্ডের বিপিনালয়, কেশবপুর কালীবাড়ি, শ্রীগঞ্জ বকুলতলা পূজামন্দির, কুটিবাড়ী শ্মশান, পতিতাপল্লী এবং কেশবপুর পাটনির খেয়াঘাট, শ্রী শ্রী কমল ঠাকুরের সমাধী, চারআনি বাজার, তিনকুড়ি বঙ্গপাধ্যায়ের কাছারী বাড়ী, কেশবপুর খাদ্যগুদামের পাশে ষষ্ঠীতলা থানসহ বিভিন্ন স্থানে ভ্রমন শেষে সাবেক প্রিক্যাডেট স্কুলের গোলঘরে এসে শেষ হয় এবং বিষয়গুলি নিয়ে ব্যাখ্যা করা হয়। পরে সকলে মিলে খাদ্য খাওয়া হয়।

পরিদর্শনকালে কেশবপুরে সাহিত্য ভ্রমন পরিষদের সভাপতি ও চুকনগর কলেজের অধ্যাপক হাশেম আলী ফকিরের সাথে ছিলেন, পাঁজিয়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ রুহুল আমিন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোথাহার হোসাইন, কেশবপুর উপজেলা নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক সুশান্ত দত্ত, অবসরপ্রপ্ত মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ইপিআই) আব্দুল জব্বার, মঙ্গলকোট সেবা সমাজ কল্যাণ সংস্থার পরিচালক এস,এম কোরবান আলী, বড়েঙ্গা সম্মিলনী বিদ্যাপীঠ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র শিক্ষক মনোজ হালদার, সাহিত্যিক অনুপম ইসলাম, গড়ভাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুপ্রসাদ বসু, শিক্ষক কৃষ্ণ পদ দাস, সাহিত্য কর্মী হদিউজ্জামান জয়, অবসরপ্রাপ্ত বিআরডিবি হিসাব রক্ষক স্বদেশ সরকার, পাথরা-পাঁচারই সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আল মামুন পারভেজ, সাহিত্য কর্মী আকতারুজ্জামান, পাথরা-পাঁচারই সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আল মামুন পারভেজ, মঙ্গলকোট রংমহল নাট্য সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দীন সরদার, সাংবাদিক পরেশ দেবনাথ প্রমূখ।

পরিদর্শনকালে কেশবপুর পুরাতন বাসস্ট্যান্ডের বিপিনালয়, কেশবপুর কালীবাড়ি, শ্রীগঞ্জ বকুলতলা পূজামন্দির, কুটিবাড়ী শ্মশান, পতিতাপল্লী এবং কেশবপুর পাটনির খেয়াঘাট, শ্রী শ্রী কমল ঠাকুরের সমাধী, চারআনি বাজার, তিনকুড়ি বঙ্গপাধ্যায়ের কাছারী বাড়ী, কেশবপুর খাদ্যগুদামের পাশে ষষ্ঠীতলা থানসহ বিভিন্ন স্থানে ভ্রমন শেষে সাবেক প্রিক্যাডেট স্কুলের গোলঘরে এসে শেষ হয় এবং বিষয়গুলি নিয়ে ব্যাখ্যা করা হয়।পরে সকলে মিলে খাদ্য খাওয়া হয়।

গড়ভাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুপ্রসাদ বসু বলেন,আজকের চলাটা ছিল বিকল্পধর্মী। শিক্ষক কৃষ্ণ পদ দাস বলেন, আজ জীবনের একটা স্মরণীয় দিন, যা ইতি পূর্বে কোনদিন আমার জীবনে আসেনি। অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোথাহার হোসাইন বলেন, কেশবপুর সম্পর্কে যতটুকু জানতাম আজকের ভ্রমনে আরও অনেক কিছু স্বচক্ষে দেখে অবিভূত হলাম। তিনি আরও বলেন, কেশবপুরে অনেক ভ্রমনের যায়গা আছে যেখানে সময়ে সময়ে এই সব যায়গা ঘোরা দরকার।

পাঁজিয়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ রুহুল আমিন বলেন, কেশবপুরের বেশ কিছু ইতিহাস লিখেছি কিন্তু আজ আালাদা একটা ভ্রমন হলো। ভ্রমন সভা মিলন মেলায় পরিনত হয়।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।