1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:১০ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
খুলনার ডাকবাংলায় আগুনে পুড়েছে ৩টি দোকান আজ পবিত্র শবে বরাত ঝিকরগাছা থানার দু’এএসআইসহ এক কনস্টেবলের বিদায় সংবর্ধনা নদী ও খাল খনন করে মিষ্টি পানির প্রবাহ সৃষ্টি করা হবে;মাছ ও ধান চাষ বাধ্যতামূলক করতে হবে-এমপি রশিদুজ্জামান ইসলামী ছাত্র আন্দোলন দৌলতপুর থানার সম্মেলন অনুষ্ঠিত; সভাপতি রাকিবুল,সম্পাদক তাজ কপিলমুনিতে রায় সাহেব বিনোদ বিহারী গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের ২৩তম স্মরনসভায় জেলার নেতৃবৃন্দরা কৈয়া প্রি ক্যাডেট স্কুলের ২দিন ব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগীতার পুরষ্কার বিতরন দিঘলিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মারামারিতে ৫ জন গুরুতর জখম বিদ্যানন্দকাটি মাছের ঘেরে বিষ প্রয়োগ করে তিন লক্ষ্যাধিক টাকার ক্ষতিসাধন বাগেরহাটে মুদি দোকানে আগুন; নিহত ১ আহত ২ নগরীর রায়েরমহলে সাবেক কাউন্সিলরের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি খুলনায় খাদ্য কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা কেশবপুরে জাতীয় দিবসগুলো উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের অভিযানে ভারতীয় ঔষধ’সহ আটক ১ প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যায়ে সর্ব প্রথম একুশে বই মেলা-২০২৪ এর শুভ সূচনা একদিনের সফরে খুলনা আসছেন জুনাইদ আহমেদ পলক কেএমপি’র অভিযানে ১১৭ পিস ইয়াবা ও ৪৮৫ গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেফতার ৮ নড়াইলে ফেন্সিডিলসহ এক মাদক কারবারি আটক নড়াইলে লাখো প্রদীপ জ্বালিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ

সাতক্ষীরায় মরিচ্চাপ নদীর বেড়িবাঁধ কেটে মাটি বিক্রি: প্লাবন আতঙ্ক

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১৬৯ বার শেয়ার হয়েছে

তারিকুজ্জামান,আশাশুনি প্রতিনিধি // সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার সদ্য খননকৃত মরিচ্চাপ নদীর বেড়িবাঁধ কেটে মাটি লুট করছে একটি প্রভাবশালী মহল। ফলে অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ। ডাম্পার গাড়ি ও মিনি ট্রাকে করে মাটি কেটে ফসলি জমি ভরাট করা হচ্ছে। এতে করে একদিকে সরকারি টাকায় খননকৃত নদীর বাঁধ ধ্বংস হচ্ছে, অন্যদিকে ফসলি জমি ভরাট হওয়ায় মারাত্মক পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। ডাম্পার গাড়িতে মাটি বোঝাই করে নিয়ে যাওয়ার কারণে ক্ষতি হচ্ছে সদ্য নির্মিত পাকা রাস্তার। ডাম্পার থেকে রাস্তার উপর মাটি পড়ার কারণে ঘটছে দুর্ঘটনা। নষ্ট হচ্ছে পিচের রাস্তা। নদীর দুই পাড়ের মানুষ ভুগছেন প্লাবন আতঙ্কে।

স্থানীয় উপজেলা যুবলীগ নেতা তোষিকে কাইফু বলেন, ডাম্পার গাড়িতে মাটি ভর্তি করে তা গাড়ি প্রতি ৮০০ টাকায় বিক্রি করছেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ফিংড়ির জনৈক আক্তারুল ইসলাম।সদ্য খননকৃত মরিচ্চাপ নদীর ওয়াপদার বাঁধ কেটে দিনে দুপুরে ট্রাক প্রতি ৮০০ টাকায় বিক্রি করছেন আক্তারুল ইসলাম।

কাইফু আরও বলেন, বুধহাটা ইউনিয়নের নৈকাটি এলাকায় এলজিইডি’র সদ্য নির্মিত কার্পেটিং রাস্তার পিচ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এভাবে মাটি পরিবহণের কারণে। সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড বিভাগ-১ এর অন্তর্গত মরিচ্চাপ নদী থেকে এই মাটি নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় জলাশয় ভরাট করছেন কিছু ব্যক্তি, যেটা সম্পূর্ণ বেআইনী। এভাবে মাটি কাটা চলতে থাকলে মরিচ্চাপ নদীর খননকাজ শেষ হওয়ার আগেই বাঁধ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। জোয়ার-ভাটায় পানি উঠানামা শুরু করলে বুধহাটা ও শোভনালী ইউনিয়নের অসংখ্য গ্রাম প্লাবিত হবে। লবণ পানি প্রবেশ করে তলিয়ে যাবে গ্রামের পর গ্রাম।

এলাকাবাসীর উদ্ধৃতি দিয়ে কাইফু বলেন, বর্তমানে মাটি নিচ্ছেন স্থানীয় পাইথালী ও গাজীরমাঠের জুলফিকার ও অরুণ মন্ডল নামের দুই ব্যক্তি। তাদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, আমরা আক্তারুল ইসলামের কাছ থেকে ডাম্পার প্রতি ৮০০ টাকা করে মাটি কিনছি।উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি হুমায়ূন কবির রাসেল বলেন, মরিচ্চাপ নদীর খনন কাজ এখনও শেষ হয়নি। খনন কাজ শেষ হলে পানি ছেড়ে দিলে জোয়ারের পানিতে ভেসে যাবে বুধহাটা ও শোভনালী ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ এলাকা। কেননা দীর্ঘদিন পরে নদী খনন হচ্ছে, পরে সেই মাটি দিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হয়েছে। কিন্তু সেই বেড়িবাঁধের মাটি এভাবে কেটে নেওয়ায় সর্বনাশ হচ্ছে। সরকারের কোটি কোটি টাকার এ প্রকল্প কোন উপকারে আসবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এছাড়া বড় বড় ডাম্পার বোঝাই করা মাটি গ্রামের ভিতর দিয়ে এলজিইডি’র নব নির্মিত পিচের রাস্তা উপর দিয়ে মাটি পরিবহনের কারনে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

স্থানীয় বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাহবুবুল হক ডাবলু বলেন,এটা সম্পূর্ণ আইন বহির্ভূত কাজ। এভাবে খননকৃত নদীর বাঁধের মাটি কাটলে তা এলাকাবাসীর উপকারের পরিবর্তে অপকার হবে। তাই বাঁধ রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। যেকোনভাবে এটা বন্ধ করতে হবে বলে জানিয়েছেন।এদিকে, উপজেলা তাঁতীলীগের সভাপতি হুমায়ূন কবির রাসেল সোমবার (২৬ ডিসেম্বর) সরেজমিনে যেয়ে তাদের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় মাটি কাটা বন্ধ করে দিয়েছেন বলে জানান।

এব্যাপারে আশাশুনি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী বলেন, মরিচ্চাপ নদীর বেড়িবাঁধ কেটে মাটি কাটার খবর শুনে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেছি। আমি নিজেই সরেজমিনে যাব এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

এদিকে সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড, পাউবো বিভাগ-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী নদীর বাঁধ কেটে মাটি বিক্রির ঘটনায় স্থানীয়দের থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানান তোষিকে কাইফু।এ ব্যাপারে আক্তারুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাঁর সহযোগী ফোন রিসিভ করে বলেন,সাহেব ব্যস্ত আছেন। পরে কথা বলেন।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।