1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০১:১৮ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
উত্তাল খুলনা: কোটা সংস্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ লোহাগড়ায় দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে শিক্ষার্থী নিহত,আহত ৪ চলছে কমপ্লিট শাটডাউন; সারা দেশে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ খুলনায় ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ; সারাদেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন কেশবপুর থানা পুলিশের সাঁড়াশি অভিযানে ৩ মাদক ব্যবসায়ী নড়াইলে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মৃত্যু মোংলায় হু হু করে বাড়ছে সবজি ও মাছের দাম: সাধারণ ক্রেতাদের নাভিশ্বাস পবিত্র আশুরা উপলক্ষ্যে কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান মোরেলগঞ্জে পরিবহনের ধাক্কায় নিহত-১ ছাত্র হত্যা ও ছাত্রীদের লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে খুলনায় ইসলামী আন্দোলনের মিছিল কাল বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা অনির্দিষ্টকালের জন্য কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে মধুমতী নদী থেকে আরও এক অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার অনির্দিষ্টকালের জন্য খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা সকল সিটি করপোরেশন এলাকায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা শার্শায় বাল্য বিবাহ নিরোধ ও সচেতন মূলক সভা অনুষ্ঠিত নড়াইলে ৬০পিস ইয়াবা ও ১৫ পুরিয়া(০১ গ্রাম) হিরোইনসহ ৪ মাদক কারবারি গ্রেফতার দেশের সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা যশোরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

প্রধানমন্ত্রীর টুঙ্গিপাড়া-কোটালিপাড়া জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত হবে

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ১০২ বার শেয়ার হয়েছে

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি || দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজ নির্বাচনী গোপালগঞ্জ-৩ আসনে জনসভা করতে গোপালগঞ্জ আসছেন। টুঙ্গিপাড়া-কোটালিপাড়ায় নিজ নির্বাচনী জনসভায় আগামী ৩০ ডিসেম্বর (শনিবার) যাচ্ছেন টানা ৩ বারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ওইদিন সকালে টুঙ্গিপাড়ায় সরকারি শেখ মুজিবুর রহমান কলেজ মাঠে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য দেবেন। এরপরে কোটালিপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান আদর্শ সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত জনসভায় যোগ দেবেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

এর আগে ২৯ ডিসেম্বর সকালে ঢাকার গণভবন থেকে সড়ক পথে তিনি বরিশালে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেবার উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন। পরে সেখান থেকে সড়ক পথে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। সেখানে পৌঁছে তিনি জাতির জনকের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন এবং রাতে বঙ্গবন্ধু বাসভবনে রাত্রি যাপন করবেন বলে জানা গেছে।

স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর এই জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত হবে। আশপাশের জেলা থেকেও অনেক মানুষ ভীড় করবেন তাঁর বক্তব্য শোনার জন্য। তাই প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে প্রয়োজনীয় সব ধরনের কাজ করছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। প্রধানমন্ত্রী নিজ নির্বাচনী এলাকায় নিজ গ্রামের মানুষের কাছে আসছেন। তার ভোট চাইতে হবে না। তাঁকে একনজর দেখতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে সর্বস্তরের জনগণ।

দর্শনার্থী জনাব ইকবাল হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর মানসকন্যা শেখ হাসিনার নিজ নির্বাচনী এলাকায় আগমনে আনন্দে উচ্ছ্বসিত টুঙ্গিপাড়ার সর্বস্তরের মানুষ। জনসভা সফল করতে রাত-দিন পরিশ্রম করছে স্থানীয় নেতাকর্মী সহ আয়োজক কমিটি। মানুষের মাঝে আনন্দের জোয়ার বইছে। ৩০ ডিসেম্বর সরাসরি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে দেখতে পাবো, দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য শুনবো, সেই আনন্দের অনুভূতি সত্যিই ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।

কোটালিপাড়ার মেয়র মতিয়ার হাজরা বলেন, কোটালিপাড়ার ভোটারদের প্রাণ শেখ হাসিনাকে এক নজর দেখার জন্য দিন গুনছেন কোটালিপাড়ার সর্বস্তরের মানুষ। ভোট চাইতে হবেনা প্রধানমন্ত্রীকে, তারা কথা দিতে চান, আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে শতভাগ ভোট নৌকায় দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারো নির্বাচিত করতে চান ভোটাররা । চাওয়া একটাই প্রধানমন্ত্রীকে দেখা ও তার মুখে নির্বাচনী দিক-নির্দেশনা শোনা।

টুঙ্গিপাড়া উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল শেখ বলেন, টুঙ্গিপাড়া প্রধানমন্ত্রীর নিজ নির্বাচনী এলাকা হওয়ায় এখান থেকে তিনি দেশের সর্বোচ্চ কাস্ট ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হন। তাঁর আগমনকে কেন্দ্র করে সমাবেশ স্থলের স্টেজ নির্মাণ প্যান্ডেল, সাউন্ড সিস্টেমসহ অন্যান্য কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মী, নির্মাণ, ইলেকট্রিকস, ডেকোরেটর কর্মীগন দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন মাঠ প্রস্তুত করার জন্য। প্রধানমন্ত্রী আসার আগেই তারা সব কাজ শেষ করবেন। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষ্যে টুঙ্গিপাড়ায় সর্বস্তরের মানুষ আনন্দে মেতে উঠেছে। তাদের প্রিয় নেতৃকে একবার কাছ থেকে দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে তারা। গোপালগঞ্জের মানুষের কাছে কখনো ভোট চাইতে হয় না প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। তবুও তিনি নিজ নির্বাচনী জনসভায় ভোট চাইবেন।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।