1. info@www.khulnarkhobor.com : khulnarkhobor :
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ০৮:০৬ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com    বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৪৭,আপার যশোর রোড (সঙ্গীতা হোটেল ভবন) নীচতলা,খুলনা-৯১০০।ফোন:০১৭১০-২৪০৭৮৫,০১৭২১-৪২৮১৩৫। মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:- ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
খুলনার খবর
জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পেল খুলনার প্রিয়াম ফিশ এক্সপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় রপ্তানি ট্রফি পেল ৭৭ প্রতিষ্ঠান নড়াইলে সাংবাদিকের পরিবারের উপর হামলা ও প্রান নাশের হুমকির অভিযোগ শার্শায় পাট পচনের জন্য বৃষ্টির হাহাকার; কৃষকের মনে সংশয় লোহাগড়ায় পরিছন্ন ও সৌন্দর্যবর্ধন কর্মসূচির উদ্বোধন শার্শায় যুবককে ছুরিকাঘাত করে টাকা ছিনতাই কেশবপুরে পরিচ্ছন্ন পৌরসভা গড়তে শহরের হোটেল-সেলুন-চায়ের-চায়ের দোকানে ডাস্টবিন প্রদান পাইকগাছায় বোনদের জমি জোর পূর্বক ভোগদখল করেছে ভাইয়েরা তেরখাদায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ কেশবপুরের গড়ভাঙ্গা ভায়া দূর্বাডাঙ্গা সড়কের সংস্কার কাজ নয় মাস ধরে বন্ধ,ঠিকাদার উধাও যশোরে মাকে হত্যার পর মরদেহ মাটিতে পুঁতে রাখার অভিযোগ মোংলায় টাকা দিয়ে বৈধভাবে জমি কিনে বিপাকে পড়েছেন কয়েকজন ক্রেতা তেরখাদায় আব্দুস সালাম মূর্শেদী ফকিরহাটে যাত্রীবাহী দুটি বাসের সংঘর্ষ; নিহত ১, আহত কমপক্ষে ২০ কেশবপুরে সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করলেন এমপি আজিজুল ইসলাম লোহাগড়ায় কেন্দ্রীয় যুবদলের নতুন কমিটিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে যুবদলের আনন্দ মিছিল খুলনায় জমিসংক্রান্ত বিরোধে ভাতিজার হাতে চাচা নিহত,আহত ২ কেশবপুরে ১৮৫ জন শিশুদের মাঝে স্কুল ব্যাগ,বেডসীড এবং মশারী বিতরণ দিঘলিয়া সন্তান ও ঢাকা আশুলিয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি কামাল হোসেন এর পিতার মৃত্যু অবশেষে উন্মক্ত হলো কপিলমুনি ধান্য চত্বর

লোহাগড়া পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা; জনভোগান্তি চরমে

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২ জুলাই, ২০২৪
  • ১৭ বার শেয়ার হয়েছে

মোঃ আলমগীর হোসেন,নড়াইল প্রতিনিধি || নড়াইলের লোহাগড়া পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, অল্প বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় পুরো এলাকা। কাদা পানিতে হয়ে পড়ে চলাচলের অনুপযোগী।

পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়ক ও ড্রেনেজের বেহাল দশায় সামান্য বৃষ্টিতেই সড়ক ও বাজারে পানি জমে থাকায় ব্যবসায়ীদের ভোগান্তি যেন চরম আকার ধারণ করেছে। বর্ষাকাল আসতে না আসতেই শহরের এ অবস্থায় নাজেহাল পৌরবাসী।দীর্ঘদিন ধরে সড়ক ও ড্রেনেজের এমন বেহাল দশা থাকলেও ব্যবস্থায় উদ্যোগ নেই কর্তৃপক্ষের, এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।

মঙ্গলবার (২ জুলাই) লোহাগড়া পৌর শহরের বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন অলিগলি সড়কগুলোতে পানি থৈ থৈ করছে। কোথাও কোথাও পানি হাঁটু সমান। পানি বের হওয়ার রাস্তা না থাকায় সামান্য বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ অবস্থায় ব্যবসায়ী ও ক্রেতারা চরম বিপাকে পড়েছেন। ময়লা পানির ভ্যাপসা গন্ধে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকিও।

জলাবদ্ধতা ও সড়কে কাদা পানি সৃষ্ট হওয়ায় শহরের বেশ কয়েকটি এলাকার ভুক্তভোগীরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, আমরা পানিতে ডুবলেও খোঁজ নিতে আসেন না কোনো কাউন্সিলর, এমনকি পৌর মেয়রও। শহরবাসী দীর্ঘ বছর ধরে এমন ভোগান্তি পোহালেও পৌর কর্তৃপক্ষ জলাবদ্ধতা ও সড়ক সংস্কারে নিচ্ছেন না কোনো ব্যবস্থা।

বৃষ্টির পানি জমে লোহাগড়া বাজারের প্রত্যেকটি সড়কে কাদা পানি জমে চলাচলের একদমই অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। লোহাগড়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রবেশদ্বার, ফয়েজ মোড় এলাকা, বাজারে ঢোকার প্রধান সড়ক, স্বর্ণপট্টি সহ প্রত্যেকটা সড়কের একই অবস্থা। ড্রেনেজগুলোর বেহাল দশার কারণেই এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ ব্যবসায়ী ও পথচারীদের।খোদ পৌর ভবনের সামনের সড়কটির অবস্থা এতই লাজুক যে কোন ধরনের যান চলাচল করতে পারছে না। আলামুন্সির মোড় থেকে ফয়েজ মোড় পর্যন্ত সড়কটি সবসময়ই হাটু পানিতে নিমজ্জিত থাকে।স্থানীয়রা আঙুল তুলছে খোদ মেয়রের দিকে।

লক্ষীপাশা সঙ্গীত একাডেমীর সভাপতি বিএম লিয়াকত হোসেন বলেন, বৃষ্টি হলেই পৌরসভার বিভিন্ন অলিগলির সড়কগুলো কাদা পানিতে চলাচলে ভোগান্তিসহ সাধারণ মানুষের কষ্ট বাড়ে। অনেক এলাকায় বাড়িঘরেও পানি উঠে যায়। চরম দুর্ভোগ নিয়ে চলতে হচ্ছে শহরবাসীকে। তাই শহরবাসীর জন্য প্রয়োজন সড়কগুলো সংস্করন ও আধুনিক ড্রেনেজ ব্যবস্থা।

পোদ্দার পাড়া এলাকার বাসিন্দা অসীম রায় জানান, অপরিকল্পিত নগরায়ণ,রাস্তাঘাটের বেহাল দশা ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও পানি নিষ্কাশনের অভাবে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। র্দীঘদিন ধরে জলাবদ্ধতায় শহরবাসী ভোগান্তি পোহালেও পৌর কর্তৃপক্ষ সমস্যাটির সমাধানে কোনো পদক্ষেপই নিচ্ছেন না।

এ বিষয়ে লোহাগড়া পৌরসভার মেয়র সৈয়দ মশিউর রহমান বলেন, লোহাগড়া বাজার সহ পৌরশহরের বিভিন্ন সড়ক গুলোর খোঁজখবর নিয়েছি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সব সময় যোগাযোগ করছি প্রকল্প আসলে প্রতিটি কাজ বাস্তবায়ন করা হবে৷

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
Copyright © 2022 KhulnarKhobor.com মেইল:khulnarkhobor24@gmail.com।জাতীয় অনলাইন গণমাধ্যম নীতিমালা আইনে তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক নিবন্ধন আবেদিত।স্মারক নম্বর:-  ০৫.৪৪.৪৭০০.০২২.১৮.২৪২.২২-১২১।এই নিউজ পোর্টালের কোন লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।